সম্পাদকীয়
   প্রচ্ছদ-কাহিনী
   প্রতিবেদন
   আইন-আদালত
   মত-অভিমত
   ফলো-আপ
   নারী
   আন্তর্জাতিক
   পাঠক-পাতা
   সংগঠনবার্তা

 

যোগাযোগ

সম্পাদক, বুলেটিন
আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)
৭/১৭ ব্লক-বি, লালমাটিয়া
ঢাকা-১২০৭
ইমেইল-
ask@citechco.net,
publication@askbd.org

   
   
   
   

... .      
           

সম্পাদকীয়

জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আইন ২০০৯-এর এক বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। সমপ্রতি এ আইনানুযায়ী গঠন করা হয়েছে একটি পূর্ণাঙ্গ কমিশন। কমিশনে চেয়ারম্যানসহ এমন ক’জন ব্যক্তি নিয়োগ পেয়েছেন, যারা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় বরাবরই সোচ্চার। তবে বিদ্যমান আইনের কাঠামোর মধ্যে এ মানুষগুলো কতটা ভূমিকা রাখতে পারবেন, সেটা আগামীতে দেখার বিষয়। বয়সে নবীন হলেও প্রতিষ্ঠানটির ওপর আমাদের প্রত্যাশা অনেক। সেই সঙ্গে রয়েছে নানা শঙ্কা। ‘জাতীয় মানবাধিকার কমিশন’ শীর্ষক প্রচ্ছদকাহিনীতে এ বিষয়গুলোর ওপর বিশেষভাবে আলোকপাত করা হয়েছে।

৩ জুন ২০১০ রাতে পুরান ঢাকার নিমতলীতে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ অগ্নিকান্ড অতীতের আর সব অগ্নিকান্ডজনিত দুর্ঘটনাকে ছাড়িয়ে গেছে। এতে মারা গেছে ১২১ জন, এখনো হাসপাতালে ধুঁকছে অনেকে। ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল, তারা ১৭ দফা সুপারিশ সংবলিত তদন্ত প্রতিবেদন পেশ করেছেন। এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না যে, আমাদের লোকজনের আইন না মানা এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদারকির অভাব এ জাতীয় বিপদ বারবার ডেকে আনে। এ নিয়ে কিছুদিন হয়তো হইচই হলো, দু’একটি উদ্যোগও নেয়া হলো তাৎক্ষণিকভাবে, তারপর চুপচাপ। আরেকটি নতুন দুর্ঘটনার নিচে চাপা পড়ে যায় পুরনো ঘটনার হাহাকার। সমস্যার গভীরে আর যাওয়া হয় না। কিন্তু অন্ধ হয়ে বসে থাকলে তো আর প্রলয় বন্ধ থাকে না! ঢাকাকে বাঁচানোর জন্য অপরিকল্পিত নগরায়ন রোধ করাসহ আইনের বাস্তবায়ন যে অন্যতম একটি পন্থা- সেটি আলোচ্য প্রতিবেদনে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

মত-অভিমত পর্বে এবারে রয়েছে ভিন্ন স্বাদের একটি লেখা। যেখানে আমাদের চোখের সামনে ঘটে যাওয়া অনেক ঘটনার নিগূঢ় সূত্রগুলো হয়তো আমরা খুঁজে পাবো। নারী-পর্বে সামপ্রতিককালের নারীবাদী চিন্তা-চেতনার কিছুটা হদিস দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

আইন-আদালত পর্বে বরাবরের মতো এবারও রয়েছে জনস্বার্থে মামলাসহ ইদানীংকালের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মামলার পর্যালোচনা। আত্মহত্যার প্ররোচনা নিয়ে রয়েছে দুটি মামলা। উল্লেখ্য যে, উত্ত্যক্তকরণের শিকার শিলা খাতুন বৃষ্টি এবং উম্মে কুলসুম ইলোরা নামে দুজন মেয়ের আত্মহত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ দুটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দুটি পরিচালনা করছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)। তাছাড়া আসক-এর পক্ষ থেকে উত্ত্যক্তকরণ রোধে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত খবর রয়েছে সংগঠনবার্তা শীর্ষক নতুন পর্বটিতে। বিষয়টির গুরুত্ব বিবেচনায় পাঠক-পাতায়ও এ সম্পর্কিত আরো দুটি লেখা ছাপা হলো। পাঠক, সামপ্রতিককালের ভাবনা নিয়ে আপনিও শরিক হোন আমাদের পাঠক-পাতায়। সাদর আমন্ত্রণ জানাই।


উপদেষ্টা সম্পাদক: হামিদা হোসেন, সুলতানা কামাল, এডভোকেট ইদ্রিসুর রহমান * সম্পাদক: শাহীন আখতার
আইনগত সম্পাদনা: আবু ওবায়দুর রহমান, এটিএম মোরশেদ আলম * প্রকাশনা সহযোগী: কানিজ খাদিজা সুরভী, শ্রাবন্তী শেগুফতা * প্রচ্ছদ: মনন মোর্শেদ * কম্পিউটার কম্পোজ: মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন, রেজওয়ানুল হক
ফটোগ্রাফ: আসক, ইন্টারনেট * মুদ্রক: অর্ক