Remembering Salma Sobhan

সালমা সোবহান (১৯৩৭-২০০৩)

সালমা সোবহান বাংলাদেশে মানবাধিকার আন্দোলনের একজন অন্যতম অগ্রদূত। অনন্যসাধারণ এই নারী একাধারে ছিলেন একজন আইনের শিক্ষক, আইনজীবী, মানবাধিকার কর্মী এবং নারী সমাধিকার আন্দোলনের সংগঠক। বলা বাহুল্য যে, তিনি কেবলমাত্র বাংলাদেশেরই নন বরং পাকিস্তানেরও সর্বপ্রথম মহিলা ব্যারিস্টার।

১৯৩৭ সালে একটি সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে সালমা সোবহান জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মোহাম্মাদ ইকরামুল্লাহ ছিলেন পাকিস্তানের প্রথম পররাষ্ট্র সচিব। মা শায়েস্তা ইকরামুল্লাহ ছিলেন পাকিস্তানের প্রথম মহিলা সংসদ সদস্যদের অন্যতম।

সালমা সোবহানের শিক্ষা জীবন শুরু হয় ইংল্যান্ড এর ওয়েস্টবার্ন স্কুলে। ১৯৫৮ সালে তিনি গিরটন কলেজ, ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন এবং ১৯৫৯ সালে লিঙ্কনস ইন থেকে বার এট ল’ সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে ১৯৬২ সালে তিনি ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

কর্মজীবনের সূত্রপাত পাকিস্তানে হলেও, ১৯৬২ সালে প্রফেসর রেহমান সোবহানের সাথে বিয়ের পর তিনি ঢাকা চলে আসেন। ১৯৬২ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ১৯ বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে শিক্ষকতা করেন। ১৯৭৪ সাল থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ল’ অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স (বিলিয়া)-র গবেষক হিসেবে দীর্ঘদিন তিনি দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে ১৯৮১ থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত সুপ্রীম কোর্ট ল’ রিপোর্টসের সম্পাদক ছিলেন।

১৯৮৬ সালে তিনি আরও ৮ জন মানবাধিকার কর্মীর সহযোগে প্রতিষ্ঠা করেন ‘আইন ও সালিশ কেন্দ্র’(আসক) নামে একটি মানবাধিকার সংস্থা যা আজ অবধি তার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে এগিয়ে চলেছে । তিনি আইন ও সালিশ কেন্দ্রের প্রথম নির্বাহী পরিচালক এবং প্রতিষ্ঠাকাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ প্রায় ১৬ বছর সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক হিসেবে সেচ্ছাশ্রম দিয়ে যান। তার ছায়াতলে মানবাধিকার রক্ষা এবং বঞ্চিত নারীদের আইনি সহায়তা প্রদানের ক্ষেত্রে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) বাংলাদেশের একটি অন্যতম প্রধান সংগঠন হিসেবে স্বীকৃতি পায়। এছাড়াও বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) প্রতিষ্ঠার পিছনেও রয়েছে তার অবদান।

তিনি বাংলাদেশে অধিকার বঞ্চিত নারীদের তাদের আইনগত অধিকার সম্পর্কে সচেতন করে তোলার পথ উন্মোচনের পথিকৃৎ ছিলেন। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আইন শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে তিনি ব্র্যাকের হয়ে একটি  প্যারালিগ্যাল প্রকল্প প্রণয়ন করেন এবং এর বাস্তবায়নে সরাসরি তদারকি করেন।

তাৎপর্যপূর্ণ এই জীবনে তিনি প্রভূত জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক সংস্থার অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ পদে কর্মরত ছিলেন। ‌ অজস্র আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ও নারী অধিকার বিষয়ক সংগঠনের সাথে তার একান্ত সংশ্লিষ্টতা ছিল। এশিয়া প্যসিফিক ফোরাম ফর উইমেন, ল’ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন সালমা সোবহান। উইমেন লিভিং আন্ডার মুসলিম ল’স এর অগ্রগতিতে তিনি অসামান্য ভূমিকা পালন করেন। এছাড়াও তার সরাসরি সম্পৃক্ততা ছিল এমন অন্য সংগঠনগুলোর মধ্যে অন্যতম ম্যাচ-কানাডা, বাওবাব-নাইজেরিয়া ইত্যাদি। নির্বাচিত হয়েছিলেন জাতিসংঘের জেনেভাস্থ রিসার্চ ইনস্টিটিউট ফর সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট- এর বোর্ড সদস্য হিসেবেও। নারী অধিকার রক্ষায় তার অসামান্য অবদানের জন্য তিনি ২০০০ সালে অনন্যা ম্যাগাজিন পুরস্কার এবং ২০০১ সালে নিউইয়র্ক ভিত্তিক ল’ইয়ার্স কমিটি ফর হিউম্যান রাইট্স থেকে পুরস্কার পান।

সালমা সোবহানের উল্লেখযোগ্য প্রকাশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে-

  • লিগ্যাল স্ট্যাটাস অফ উইমেন ইন বাংলাদেশ, বিলিয়া (১৯৭৫)
  • পেসেনটস পারসেপশন অফ ল’, ব্র্যাক (১৯৮১)
  • নো বেটার অপশন ? উইমেন ইন্ডাস্ট্রিয়াল ওয়ারকারস, ইউপিএল (১৯৮৮)

মানবাধিকার ও আইন গবেষণায় তার অবদান পরিমাপ করা যাবে না। আজীবন তিনি সকল মানবাধিকার কর্মীদের অক্লান্ত পথ নির্দেশক এবং নিরন্তর অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে চিরস্মরণীয় হয়ে রইবেন।

                                      

Salma Sobhan (1937-2003)

Salma Sobhan was a pioneer of human rights activism in Bangladesh. This extraordinary woman was a law teacher, lawyer, human rights activist and at the same time a promoter of women’s rights in Bangladesh. She is not only the first woman barrister in Bangladesh but in Pakistan as well.

Salma Sobhan was born into one of Pakistan’s prominent Muslim families, in 1937. Her father Mohammad Ikramullah was the first foreign secretary of Pakistan and mother Shaista Ikramullah was one of the first female members of Pakistan’s first parliament.

Salma Sobhan’s academic life began at the Westburn School in the United Kingdom. She obtained her Law degree from Girton College, Cambridge University in 1958 and completed her Bar at Law from Lincoln’s Inn in 1959. She then received a master’s degree from Cambridge University in 1962.

While her career started in Pakistan, she moved to Dhaka in 1962 after her marriage to Professor Rehman Sobhan. From 1962 to 1981, for almost 19 years, she taught law in the Department of law at the University of Dhaka. For a long period, from 1974 to 1984, she served as a researcher at the Bangladesh Institute of Law and International Affairs (BILIA). She was also the editor of Supreme Court Law Reports from 1981 to 1988.In 1986, along with eight other human rights activists, she founded a human rights organisation called “Ain o Salish Kendra (ASK)”, which till date has been moving forward with her ideals. She was also the first Executive director of ASK and voluntarily served for nearly 16 years from its inception in 1986 to 2001. Under her supervision, ASK became one of the well-known and leading organisations of Bangladesh in terms of protecting human rights and providing legal assistance to underprivileged women. Her contribution can be well found behind the establishment of the Bangladesh Legal Aid and Services Trust (BLAST). She was a pioneer in raising awareness among disadvantaged women about their legal rights in Bangladesh. She developed a paralegal project for BRAC to disseminate legal education in remote areas of the country and directly supervised its implementation.Over the course of her eventful life, she held numerous important positions in many national and international organisations. Salma Sobhan was one of the founding members of the Asia Pacific Forum for Women, Law and Development. She played a remarkable role in the advancement of women living under Muslim laws. She has worked directly with other organisations as well, including Match-Canada, Baobab-Nigeria etc. She was elected as a board member of the United Nations Research Institute for Social Development, based in Geneva. She received the Ananya Magazine award in 2000 and the New York-based Lawyers Committee for Human Rights Award in 2001 for her outstanding contribution in the development of women’s rights.

Salma Sobhan’s notable publications include-

  • Legal Status of Women in Bangladesh, BILIA (1975)
  • People’s Perception of Law, BRAC (1981)
  • No Better Option? Women Industrial Workers, UPL (1988)

Thousands of words would not suffice to describe her contribution to the promotion of human rights and legal education. She will always be remembered as a relentless leader and lifelong inspiration for all human rights defenders.